রবিবার | ১৬ জুন, ২০২৪ | ২ আষাঢ়, ১৪৩১

একজন স্বপ্নজয়ী নারী ফুটবলার লালপুরের নার্গিস খাতুন

ইমাম হাসান মুক্তি, প্রতিনিধি, নাটোর (লালপুর)
ঢাকার এফসি ব্রাক্ষণবাড়িয়া ক্লাবের অনূর্ধ্ব ১৫/১৭ নারী দলের ফুটবলার নার্গিস খাতুন। একজন স্টপার। বয়স ১৫ বছর। উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি। বাড়ি নাটোরের লালপুরে।
অতি সাধারণ পরিবারের সন্তান নার্গিস খাতুন। বাবা একজন গরু ব্যবসায়ী। মা সাধারণ গৃহিণী। দেশের একজন খ্যাতিমান নারী ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন দেখেন তিনি।
নার্গিস খাতুনের সাথে কথা হয় শনিবার (১৫ মে ২০২১)। তিনি আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন, বিকেএসপিতে ভর্তিতে প্রথমে বাবা-মা’র সম্মতি ছিল না। মূলত অসুস্থ বাবার আর্থিক সংকটের কারণে তাদের অমত ছিল। পড়াশুনার পাশাপাশি প্রতিবেশির বাড়িতে কাজ করতেন তিনি। ২০১৫ সালে প্রথম ‘প্লান ইন্টারন্যাশনাল এসোসিয়েশন’ আয়োজিত গোপালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৬ সালে প্রার্থী বাছাইয়ে নাটোর জেলা স্টেডিয়ামে ৬০ জনের মধ্যে একমাত্র তিনিই মনোনীত হন। এরপর বিকেএসপিতে এক মাস, চার মাস ও সাত দিনের ক্যাম্প করে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হন। ২০১৭ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি বিকেএসপিতে ভর্তি হন। ভর্তির সময় একটি গরু বিক্রি করে অর্থের সংকুলান হয় না। লালপুর পাবলিক লাইব্রেরিসহ অনেকের ব্যক্তিগত সহযোগিতায় ৬০ হাজার টাকা যোগাড় করে ভর্তি হন। তাকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তপন কুমারসহ শিক্ষকরা সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।
নাটোরের লালপুর উপজেলার বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামে ২০০৪ সালের ১০ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন নার্গিস খাতুন। পিতা মো. মুজদার রহমান ও মাতা মোছা. রুবি বেগম। তিন বোনের মধ্যে দ্বিতীয় নার্গিস খাতুন। বড় বোন মোছা. বৃষ্টি আক্তার, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে ঈশ্বরদী সরকারি কলেজে স্নাতকে (সম্মান) অধ্যয়নরত এবং ছোট বোন মোছা. নাদিয়া খাতুন, ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।
তিনি লালপুর খাতেমুন্নেছা বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণি পাশ করেন। লালপুর পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় ২০১৬ সালে বাংলাদেশ ক্রিড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)-এ ভর্তির সুযোগ পান। তিনি ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী।
তিনি বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) অনূর্ধ্ব ১৫/১৭ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। জামিলপুর কাচারিপাড়া একাদশে ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১৭ সালে বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ অনূর্ধ্ব ১৭-তে জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পান। ২০২১ সালে ৩ মার্চ বীচ ফুটবল টুর্নমেন্টে খেলেন।
বাংলাদেশ নারী প্রমিলা ফুটবল প্রিয় ক্লাব বা দল। প্রিয় খেলোয়াড় এলেক্স মরগান। বাংলাদেশ নারী ন্যাশনাল টিমে খেলার স্বপ্ন দেখেন তিনি।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.