রবিবার | ১৬ জুন, ২০২৪ | ২ আষাঢ়, ১৪৩১

রাশিয়ায় চতুর্থ প্রজন্মের এনার্জী কমপ্লেক্স ভিজিটে ভারতীয় প্রতিনিধি দল

ডেক্স রিপোর্ট:
ভারতের পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যান এবং পারমাণবিক শক্তি বিভাগের সচিব অজিত কুমার মহান্তির নেতৃত্বে উচ্চ পর্যায়ের একটি ভারতীয় প্রতিনিধি দল সম্প্রতি রাশিয়ার টমস অঞ্চলের সিবিরস্কে একটি পরীক্ষামূলক ডেমন্সট্রেশন এনার্জী কমপ্লেক্স ভিজিট করেছে। এটি বিশ্বের প্রথম চতুর্থ প্রজন্মের এনার্জী কমপ্লেক্স। স্থাপনাটি রুশ সরকারের কৌশলগত শিল্প প্রকল্প ‘প্রারিভ’ এর অধীনে বাস্তবাইয়ীত হচ্ছে।

ভিজিটকালে অজিত মহান্তি রাশিয়ার পরমাণু শক্তি কর্পোরেশন রসাটমের মহাপরিচালক আলেক্সি লিখাচেভের সাথে পরমাণু খাতে রুশ-ভারত সহযোগিতার সম্ভাব্য ক্ষেত্রগুলো নিয়ে আলোচনা করেন।

আলেক্সি লিখাচেভ জানান, “পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমরা ভারতের সঙ্গে বিস্তৃত সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত। এর মধ্যে রয়েছে ভারতের নতুন একটি সাইটে রুশ ডিজাইনের উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পারমাণবিক বিদ্যুৎ ইউনিট সমূহে সিরিয়াল নির্মান, কম ক্ষমতাসম্পন্ন স্থলভিত্তিক এবং ভাসমান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মান, পারমাণবিক জ্বালানী চক্রসহ নন-এনার্জী ক্ষেত্রে পারমাণবিক প্রযুক্তির ব্যবহার সম্পর্কিত সহযোগিতা”।

আলেক্সি লিখাচেভ এবং অজিত মহান্তি বর্তমানে রাশিয়ার সহযোগিতায় ভারতে নির্মানাধীণ কুদানকুলাম পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়েও আলোচনা করেন। উল্লেখ্য, এই প্রকল্পে লাইট ওয়াটার রিয়্যাক্টর ভিত্তিক ৬টি বিদ্যুৎ ইউনিট থাকছে, যার প্রতিটির উৎপাদন ক্ষমতা ১,০০০ মেগাওয়াট। ইউনিটগুলোর পুরো জীবন চক্র জুড়ে পারমাণবিক জ্বালানীও সরবরাহের দায়িত্ব নিয়েছে রসাটম।

‘প্রারিভ’, যার অর্থ হলো যুগান্তকারী প্রকল্পটির মূল লক্ষ্য হলো পারমাণবিক শিল্পে নতুন ধরণের প্রযুক্তির প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা, যাতে ‘কোজড নিউক্লিয়ার ফুয়েল সাইকেল’ নিশ্চিত করার মাধ্যমে স্পেন্ট ফুয়েল এবং তেজস্ক্রিয় বর্জ্য সমস্যার সমাধান থাকবে।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.