বৃহস্পতিবার | ২০ জুন, ২০২৪ | ৬ আষাঢ়, ১৪৩১

নাটোরের ৪টি আসনে ১২ জনের মনোনয়ন বাতিল

নাটোর প্রতিনিধি :
নাটোরের ৪টি আসনে নৌকার বিপক্ষে আ.লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ১২ জনের মনোনয়নপত্র করা হয়েছে। এ আসনে ৪৩ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।
সোমবার (৪ ডিসেম্বর ২০২৩) যাচাই-বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বাতিল করেন নাটোর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক আবু নাছের ভূঁঞা।
৫৮ নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগের ২ জনসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এ আসনে ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এখন নৌকার বিপক্ষে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র ৪ জনসহ ৯ প্রার্থী লড়বেন।
মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থীরা হলেন, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও বঙ্গবন্ধু প্রবীণ জোট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কর্নেল (অব.) মো. রমজান আলী সরকার (মৃত ভোটারের স্বাক্ষর); বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য এস এম হুমায়ন কবির (ভোটার স্বাক্ষর জাল ও ২০১৮ সালে তাঁর বিরুদ্ধে একটি মামলার তথ্য সংযুক্ত নেই), জাসদের (ইনু) মো. মোয়াজ্জেম হোসেন (ঋণ খেলাপি)। এ ছাড়াও স্বতন্ত্র গ্রাম পুলিশ মো. এস্কেন আলী (১ শতাংশ ভোটার সংখ্যা ছিল ৩৪৯৪ জন। কিন্তু মাত্র ৯৮০ জনের স্বাক্ষর জমা) এবং এডভোকেট সায়েদুল হক (ভোটারের স্বাক্ষর জাল)।
মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে টিকে থাকলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী, বর্তমান সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শহিদুল ইসলাম বকুল; তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ; তাঁর ভাতিজা একুশে পদকপ্রাপ্ত সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ মমতাজ উদ্দিন ও সাবেক সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য শেফালী মমতজের ছেলে লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ সাগর; জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. আনিসুর রহমান; জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক কাজল রায়। এছাড়া ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও নাটোর জেলা শাখার সভাপতি, উত্তরবঙ্গ আখচাষী সমিতির সভাপতি অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল; জাতীয় পার্টির ব্যারিস্টার মো. আশিক হোসেন; জাসদের (ইনু) মো. জামাল উদ্দিন ফারুক, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মো. লিয়াকত আলী।
৫৯ নাটোর-২ (নাটোর সদর-নলডাঙ্গা) আসনে স্বতন্ত্র মো. কোরবান আলীর (ভোটারের স্বাক্ষর জাল) মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।
এ আসনের লড়বেন দশম (২০১৪) ও একাদশ (২০১৮) সালে নির্বাচিত হয়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম শিমুল হ্যাটট্রিক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বিরোধী স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. আহাদ আলী সরকার। এছাড়া বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. বজলুর রশিদ, জাসদের মো. শরিফুল ইসলাম, নাটোর জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি (স্বতন্ত্র) মো. নুরন্নবী মৃধা।
৬০ নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনে নৌকা বিরোধী স্বতন্ত্র প্রার্থী নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য অধ্যাপক শামসুল ইসলাম (নির্বাচনী অর্থপ্রাপ্তি নিশ্চিত ফর্ম ২১ পূরণ ও স্বাক্ষর জালিয়াতি), জাতীয় পার্টির ইঞ্জিনিয়ার মো. আনিসুর রহমান (বিদ্যুৎ বিল বকেয়া), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মো. রুস্তম আলী (ভোটার তালিকায় মিল নেই, এনআইডি নেই, স্বাক্ষর নেইসহ বিভিন্ন অনিয়ম) ও স্বতন্ত্র মো. আব্দুল্লাহ আল মামুনের (ভোটার স্বাক্ষর জাল) মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।
এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন, বিগত ৩ বারের (১৫ বছর) নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. জুনাইদ আহমদে পলক। নৌকা বিরোধী স্বতন্ত্র প্রার্থী নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সিংড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম শফিক। এছাড়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন জাকের পার্টির রাকিবা হক, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মো. আলতাফ হোসেন, তৃণমূল বিএনপির মো. আবুল কালাম আজাদ, বিকল্পধারা বাংলাদেশের মো. আনোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আমিরুল ইসলাম এবং সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ওয়ার্কার্স পার্টির মিজানুর রহমান মিজান।
৬১ নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনে আওয়ামী লীগ কর্মী স্বতন্ত্র প্রার্থী সুজন আহম্মেদ (মামলা চলমান ও ভূয়া ভোটার তালিকা দাখিল) এবং জেপির এস এম সেলিম রেজার (আয়কর রিটার্ন জমা নেই ও বাৎসরিক আয় ব্যায়ের হিসাব জমা ও স্বাক্ষর করেননি) মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।
নির্বাচনে টিকে থাকলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত নৌকার বিপক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও শহীদ আয়নাল হক ডাক্তারের স্ত্রী, বনপাড়া পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি কে এম জাকির হোসেনের মা এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য জাহানারা বেগম; সাবেক সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন; গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম। এছাড়া জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আলাউদ্দিন মৃধা, জাকের পার্টির রবিউল করিম; তৃণমূল বিএনপির আব্দুল খালেক সরকার; বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির শান্তি রিবেরু, বিএনএম-এর গাজী আবু সায়েম রতন।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.