শনিবার | ২০ জুলাই, ২০২৪ | ৫ শ্রাবণ, ১৪৩১

সিংড়ায় মেয়রের জিপসহ ১২ গাড়ি আগুনে পুড়ে গেছে

নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরের সিংড়ায় পৌরসভার চলো এন্ড এ্যাম্বুলেন্স ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসের গ্যারেজে আগুন লেগে পুড়ে গেছে এ্যাম্বুলেন্স, মেয়রের গাড়ি ও চলো প্রকল্পের অটোসহ ১২টি গাড়ি। এ সময় গ্যারেজের নৈশ প্রহরি মহাতাব উদ্দিন আহত হয়েছেন।
মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর ২০২৩) ভোর রাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন সিংড়া ফায়ার স্টেশন কর্মকর্তা আব্দুস সালাম। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান তদন্ত সাপেক্ষে নির্ধারণ করতে পারবেন বলে জানান তিনি।
পুলিশ, সিংড়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ও পৌরসভা সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোর রাত ৪টার দিকে সিংড়া পৌরসভা কার্যালয় সংলগ্ন গ্যারেজে আগুন লাগে। এ সময় নৈশ প্রহরি চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন ও সিংড়া ফায়ার স্টেশনে খবর দেন। এ সময় আগুন নেভাতে গিয়ে নৈশ প্রহরি মাহতাব আলীকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করেন। সিংড়া ফায়ার স্টেশন কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। খবর পেয়ে পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস সহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শি ইজিবাইক চালক খাইরুল ইসলাম বলেন, রাত ৩টার পর সিংড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আসেন। বেশ কিছুক্ষণ পর বিস্ফোরন ও গুলির মত শব্দ শুনতে পাওয়া যায়। খোঁজ করতে গিয়ে জানতে পারেন, পৌরসভার কার্যালয়ের গ্যারেজে আগুন লেগেছে। সেখানে ছুটে গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন।
ফায়ার ফাইটার সুমন আলী জানান, তারা ঘটনাস্থলে যাওযার আগে আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আগুন লাগার খবর নাটোর ফায়ার স্টেশনকেও জানানো হয়। নাটোর ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।
মেয়রের গড়ি চালক রমিজুল ইসলাম জানান, রাত ৯টার দিকে পৌরসভার গ্যারেজে গাড়ি রেখে বাড়ি চলে যান। লোকমুখে খবর পেয়ে সকালে এসে দেখেন মেয়রের গাড়িসহ গ্যারেজের সব গাড়ি পুড়ে গেছে। এই গ্যারেজে চলো প্রকল্পের অটো গাড়ি থাকে।
চলো প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর ও পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা বিনয়ক চক্রবর্তী বলেন, প্রাথমিকভাবে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। আগুনে মেয়রের জিপ ও চলো পরিবহনের ১১টি অটোসহ মোট ১২টি গাড়ি পুড়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ২ কোটি টাকা বলেও জানান এই কর্মকর্তা।
সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, হঠ্যৎ করে পৌরসভার গ্যারেজে আগুন লাগে। এতে একটি জিপ গাড়ি ও ১১টি চলো অটো ইজিবাইক পুড়ে যায়। প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
সহকারী পুলিশ সুপার (সিংড়া সার্কেল) মো. আকতারুজ্জামান বলেন, গ্যারেজের পরিবেশ দেখে শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত বলে মনে হচ্ছে। সেখানে ১০টির অধিক অটো গাড়িসহ বৈদ্যুতিক ফ্যান রয়েছে। সেখানে অটো চার্জ দেওয়া হয়ে থাকে বলে জেনেছেন।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.