শনিবার | ২০ জুলাই, ২০২৪ | ৫ শ্রাবণ, ১৪৩১

বাউয়েটে কমখরচে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে পড়ার সুযোগ

মো. আশরাফুল ইসলাম :
বাংলাদেশের হাতে গোনা যে কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রাম চালু করেছে তার মধ্যে বাউয়েট অন্যতম। বাউয়েট এর নবীনতম ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ হচ্ছে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ। ২০২১ সালের ফল সেমিস্টার থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়।
সম্প্রতি বাউয়েট কর্তৃপক্ষ ফল ২০২৩ সেমিস্টারে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের চার বছরে মাত্র পাঁচ লক্ষ টাকায় সম্পন্ন করার সীমিত সময়ের জন্য বিশেষ সুযোগ দিয়েছে। মোট টাকা থেকে এক লক্ষ নব্বই হাজার টাকা বিশেষ ছাড় প্রদান করা হয়েছে। বাউয়েট এর পাঁচটি ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ের মধ্যে সবচেয়ে কম খরচে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে।
ফিরে দেখাঃ ‘জ্ঞান ও প্রযুক্তি’ এই বাণীকে বুকে ধারন করে ২০১৫ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি কাদিরাবাদ সেনানিবাসে প্রতিষ্ঠা লাভ করে বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বাউয়েট)। সিই, সিএসই এবং ইইই তিনটি ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে প্রথম ব্যাচে ২১৭জন শিক্ষার্থী ভর্তির মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে। পরবর্তীতে আইসিই এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ খোলা হয়।
আসন সংখ্যাঃ বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জরী কমিশন প্রাথমিকভাবে ২০টি আসনে শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দিয়েছে। এই বিভাগের ভর্তি আসন এবং গবেষণাগারের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি করা হবে। চার বছর মেয়াদী এই কোর্সে ডিগ্রী প্রাপ্তির জন্য মোট ৮ সেমিস্টারে মোট ১৬১ ক্রেডিট সম্পন্ন করতে হবে।
অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি সুবিধাসমূহঃ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীদের গবেষেণার সুযোগ সুবিধা বিবেচনা করে তেরটি অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হয়েছে। ল্যাবরেটরিগুলো হচ্ছে- ১. ফাউন্ড্রি ল্যাব, ২. ওয়ার্কশপ ল্যাব, ৩.মেশিন টুলস ল্যাব, ৪. থার্মো ডায়নামিক্স ল্যাব, ৫. মেটালার্জি ল্যাব, ৬. অটোক্যাড ল্যাব, ৭. ফ্লইড মেকানিক্স ল্যাব, ৮. ফিজিক্স ল্যাব ৯. কেমিস্ট্রি ল্যাব, ১০. ইইই ল্যাব, ১১. মেকানিক্যাল ড্রইং ল্যাব, ১২. প্রোগ্রামিং ল্যাব এবং ১৩.নিউমেরিক্যাল ল্যাব। এছাড়া বাউয়েটের অন্য চারটি ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত ৩৬টি অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি রয়েছে।
চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকারঃ বর্তমানে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্বে আছেন সহকারী অধ্যাপক ডক্টর মোঃ আলমোস্তাসিম মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘মূল ধারার ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়গুলোর মধ্যে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অন্যতম। চাকরির বাজারে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাধান্য আগেও ছিল এখনো আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ছাড়া ছোট, বড়, মেগা প্রজেক্ট বা ইন্ডাস্ট্রি চিন্তাই করা যায়না।’ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পরিচালিত সকল প্রতিষ্ঠান ও প্রকল্পে বাউয়েট এর শিক্ষার্থীদের চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার রয়েছে। তাই সফলভাবে ডিগ্রি সম্পন্ন করার পর চাকরির বাজারে চাকরি জোগাড় করতে তেমন বেগ পেতে হবে না বলে আশা করছি।’
মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন হিসেবে আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ শাহীনুর আলম, এসপিপি, পিইঞ্জ। শিক্ষকদের মধ্যে রয়েছে বুয়েট, বিইউপি, রুয়েট, কুয়েট থেকে পাশ করা এক ঝাঁক তরুণ ও মেধাবী শিক্ষকমন্ডলি। এছাড়া রুয়েটের স্বনামধন্য প্রফেসরগণ এখানে খন্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে ক্লাস নেন। নিজস্ব আধুনিক ল্যাবরেটরির পাশাপাশি সমঝোতা চুক্তির আওতায় রুয়েট এর ল্যাবরেটরিসমূহ ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের বাস্তব জ্ঞান অর্জনের জন্য বিভিন্ন শিল্প কারখানা নিয়মিত পরিদর্শন করা হয়। এছাড়া ক্লাস রুমের বাইরে সহশিক্ষা কার্যক্রমের জন্য রয়েছে ১৪টি সক্রিয় ক্লাব।

* মো. আশরাফুল ইসলাম: ডেপুটি রেজিস্ট্রার একাডেমিক এবং জনসংযোগ অফিসার, বাউয়েট নাটোর। মোবাইল: ০১৭০৮৫০৩৫১০।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.