শনিবার | ২০ জুলাই, ২০২৪ | ৫ শ্রাবণ, ১৪৩১

লালপুরে সম্পর্কের জেরে প্রবাসীর স্ত্রী হত্যায় অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

নাটোর প্রতিনিধি :
নাটোরের লালপুরে নিজ বাড়িতে শিউলি খাতুন (২৩) নামের এক গৃহবধূ হত্যার অভিযোগে
কথিত মামা মো. জাকির হোসেনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
শনিবার (২৯ জুন ২০২৪) রাত সাড়ে ১০টার দিকে লালপুর থানা পুলিশ এবং বাগাতিপাড়া থানা পুলিশসহ এবং স্থানীয় জনগণের সহায়তায় অভিযান পরিচালনা করে মামলার মূল আসামীকে বাগাতিপাড়ার মাড়িয়া এলাকা হতে আটক করা হয়।
আটক ব্যক্তি সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের গচিয়া গ্রামের মো. বিলাল মিয়ার ছেলে।
লালপুর থানা পুলিশ, মামলার অভিযোগ ও গ্রেপ্তাকৃত ব্যক্তির জবানবন্দি সূত্রে জানা যায়, দিনাজপুর নবাবগঞ্জের হরিনাথপুর গ্রামের মো. মফিজুর রহমানের মেয়ে মোছা. শিউলি খাতুনের (২৩) সাথে লালপুর উপজেলার চংধুপইল ইউনিয়নের কামারহাটি তেনাচোরা গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে দুবাইপ্রবাসী সোহানুর রহমান শুভর বিয়ে হয়। তাদের আব্দুল্লাহ নামে দুই বছর বয়সের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।
প্রায় এক একমাস আগে শিউলী খাতুন তার বোন মোছা. সোনালী খাতুনের ভাড়া বাসা গাজীপুর জেলার কোনাবাড়ি বেড়াতে যান। সেখানে অভিযুক্ত আসামি মো. জাকির হোসেনের সাথে পরিচয় হলে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওইখানেই তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়। গত ২৬ জুন মো. জাকির হোসেন গাজীপুর থেকে ট্রেন যোগে লালপুর শিউলী খাতুনের বাড়িতে মামা পরিচয় দিয়ে বেড়াতে আসেন। তারা একই সঙ্গে থাকেন এবং তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়। উভয়ে মধ্যে টাকা পয়সা এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শনিবার (২৯ জুন) ভোর ৫টার দিকে কথা কাটাকাটি ও মনোমালিন্য হলে আসামি জাকির হোসেন গলায় ওড়না পেচিয়ে ও বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে শিউলী খাতুনকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে লাশের সুরতহাল প্রস্তুতসহ মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয়ের জন্য লাশ নাটোর মর্গে প্রেরণ করে।
নিহত শিউলির দেবর রিপনের স্ত্রী নিতু খাতুন জানান, লালপুর উপজেলার চংধুপইল ইউনিয়নের কামারহাটি তেনাচোরা গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে দুবাইপ্রবাসী সোহানুর রহমান শুভর স্ত্রী শিউলি বেগম (২৩) ও তাঁদের দেড় বছরের সন্তান আব্দুল্লাহ এবং শিউলির দেবর দুবাইপ্রবাসী রিপনের স্ত্রী নিতু খাতুন একই বাড়িতে বসবাস করতেন। নিতু পাঁচ দিন আগে বাবার বাড়িতে যান। শিউলি খাতুন সন্তানকে নিয়ে বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। প্রবাস থেকে তার ভাসুর সোহানুর রহমান তাকে ‘কে এই মামা’ জানার জন্য জানালে তিনি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানি নুরনগর বাবার বাড়ি থেকে শনিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে নিজ বাড়িতে এসে দেখেন এক অজ্ঞাত ব্যক্তি তাদের বাড়িতে অবস্থান করছেন। নিতু তার ঘরে প্রবেশ করে দেখেন হাত মোড়ানো অবস্থায় শিউলি বিছানার উপর পড়ে আছেন। এ সময় তিনি স্থানীয় লোকজনকে ডাকলে অজ্ঞতা ওই ব্যক্তি কৌশলে বাড়ির পিছনের দরজা দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।
লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, নাটোরের পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলামের সার্বিক দিক-নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেলের নেতৃত্বে লালপুর থানা পুলিশ ও বাগাতিপাড়া থানা পুলিশ স্থানীয় জনগণের সহায়তায় অভিযান পরিচালনা করে ওইদিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে মামলার মূল আসামী মো. জাকির হোসেনকে বাগাতিপাড়ার মাড়িয়া এলাকা হতে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামি ঘটনার বিষয়টি স্বীকার করেন। এ সময় নিহতের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও গহনাপত্র উদ্ধার করা হয়।
ওসি নাছিম আহম্মেদ বলেন, এ ঘটনায় নিহতের আপন ভাই দিনাজপুর নবাবগঞ্জের হরিনাথপুর গ্রামের মো. মফিজুর রহমানের ছেলে মো. রফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। লালপুর থানার মামলা নং-৩৫, তারিখ: ২৯/০৬/২০২৪ খ্রি, ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড। অভিযুক্ত প্রধান আসামী মো. জাকির হোসেনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করে রোববার (৩০ জুন) আদালতের মাধ্যমে নাটোর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, সম্পর্কের জেরে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি শনিবার নিজ বাড়িতে শিউলি বেগমকে (২৩) হত্যা করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ সকালে তার লাশ উদ্ধার করে।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.