রবিবার | ১৬ জুন, ২০২৪ | ২ আষাঢ়, ১৪৩১

লালপুরে গোলাগুলির ঘটনায় গ্রেপ্তার ৬


লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
নাটোরের লালপুরের মোহরকয়া গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে গোলাগুলির ঘটনায় মূল পরিকল্পনাকারীসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
রোববার (১ সেপ্টেম্বর ২০২৩) ভোর রাতে লালপুর ও পাবনার ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন, এজাহার নামীয় আসামি বাকনাই গ্রামের আবু বকরের ছেলে বাবু (২৬), আক্তার হোসেনের ছেলে মো. আমানুল (৩০), শফি সরদারের ছেলে রিগান সরদার (৩৪), মোহরকয়া জামাল সরদারের ছেলে মো. মহসিন (৪৫), নিয়াত আলীর ছেলে বিজন সরকার (৩৬), রেজাউল করিমের ছেলে ইলিয়াস প্রামানিক (৩৭)। এ সময় মূল পরিকল্পনাকারী বাবুর কাছ থেকে একটি দেশীয় ধারালো অস্ত্র (রামদা) উদ্ধার করা হয়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. উজ্জ্বল হোসেন বলেন, গত ২ সেপ্টেম্বর বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের মোহরকয়া গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আসামি বাবুর নেতৃত্বে অবৈধ অস্ত্র দিয়ে গুলি ছুড়লে প্রতিপক্ষের চারজন গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়। ওই মামলায় তথ্যপ্রযুক্তির সহাতায় লালপুর ও পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় মূল পরিকল্পনাকারী বাবুসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র আইনে পৃথক মামলা হয়েছে। শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাদের নাটোর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, উপজেলার বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের মোহরকয়া গ্রামের রসুলপুর মৌজার একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধের জেরে গত ২ সেপ্টেম্বর এক পর্যায়ে শর্টগানের গুলি ছুড়লে চারজন গুরুতর আহত হন। আহতদের মধ্যে আফাজ উদ্দিনের ছেলে আসাদ (৩০), ফজল আলীর ছেলে বজলুর রহমান (৩৩) ও শাহাদাত আলীর ছেলে হান্নানকে (৪০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং আফাজ উদ্দিনের স্ত্রী হাসিনা বেগমকে (৫০) লালপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

স্বত্ব: নিবন্ধনকৃত @ প্রাপ্তিপ্রসঙ্গ.কম (২০১৬-২০২৩)
Developed by- .::SHUMANBD::.